১৩, ডিসেম্বর, ২০১৯, শুক্রবার | | ১৫ রবিউস সানি ১৪৪১

সিরাজগঞ্জে জেনারেশন ব্রেকথ্রু প্রকল্প-পর্যায় ২” এর আওতায় জেলা পর্যায়ে পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত।

আপডেট: December 4, 2019

সিরাজগঞ্জে জেনারেশন ব্রেকথ্রু প্রকল্প-পর্যায় ২” এর আওতায় জেলা পর্যায়ে পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত।

আজিজুর রহমান মুন্না,সিরাজগঞ্জ ঃ সিরাজগঞ্জ জেলা শিক্ষা অফিস এর আয়োজনে, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর ঢাকা’র বাস্তবায়নে এবং জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপিএ) সহযোগিতায়, সিরাজগঞ্জে জেনারেশন ব্রেকথ্রু প্রকল্প- পর্যায় ২ ” এর আওতায় জেলা পর্যায়ে পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) সকাল ১০টা হতে দুপুর পর্যন্ত সিরাজগঞ্জ শহরের ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের হল মিলনায়তনে উক্ত অনুষ্ঠানে, কোনআন তেলায়াত, গীতা পাঠ, স্বাগত বক্তব্য, প্রকল্পের কার্যক্রম অগ্রতির প্রতিবেদন উপস্হাপন, পরিকল্পনার উদ্দেশ্য বর্ণনা, মুক্ত আলোচনা, জেলা পর্যায়ে কর্মককর্তাদের বক্তব্য, সভাপতির বক্তব্য, অভিভাবক সমাবেশের আয়োজন খরচ বাবদ চেক বিতরণ করা হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন ও বক্তব্য রাখনে, জেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ শফীউল্লাহ।

সন্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মোঃ তৌহিদুল ইসলাম ও জেলা যুব উন্নয়নের উপ-পরিচালক স্বপন কুমার কর্মকার।

সঞ্চালক ছিলেন, জেলা শিক্ষা অফিসের সহকারি পরিদর্শক মোঃ রবিউল হাসান মন্ডল, পরিকল্পনা সভার উদ্দেশ্য বর্ণনা করেন, জেলা শিক্ষা অফিসের সহকারি পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম । প্রতিবেদন উপস্হাপন করেন, জেনারেশন ব্রেকথ্রু প্রকল্প, সিডব্লিউ এফডি,সিরাজগঞ্জের ফিল্ড ম্যানেজার মোঃ শাহিন আলম, স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ভিক্টোরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ সাজেদুল ইসলাম। এসময় অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা অধিদপ্তরের প্রোগাম অফিসার ফাহিমা আল আশরাফ, সদর মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের ভারপ্রাপ্ত অফিসার সাফা সাদরিয়া, জেলা শিক্ষা অফিসের প্রোগাম সমন্বয়ক শাহ খোন্দকার আব্দুল বারি, সহকারী প্রোগামার জহির উদ্দিন মোঃ বাবর, সহকারী পরিদর্শক মাকসুদা পারভীন মোঃ ফরিদ, জ্ঞানদায়িনী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আইয়ুব আলী, সালেহা ইসহাক সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক আফছার আলী, প্রমুখ।

উপস্হিত ছিলেন, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার প্রায় পঞ্চাশটি উচ্চ বিদ্যালয় ও দাখিল মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষকগন। অনুষ্ঠানে, বক্তারা বাল্যবিয়ে বন্ধে ও রোধে আলোচনা করেন এবং কিশোরী কন্যা শিক্ষার্থীদের মানসিক বিকাশ ঘটাতে, শারীরিক সুরক্ষা করতে ও তাদের সহযোগীতা বিষয়ে ব্যাপক আলোচনা করা হয়।