৬, ডিসেম্বর, ২০১৯, শুক্রবার | | ৮ রবিউস সানি ১৪৪১

চালের দাম বাড়লে কি জনগণকে ভাত খেতে নিষেধ করবেন: ফখরুল

আপডেট: December 3, 2019

চালের দাম বাড়লে কি জনগণকে ভাত খেতে নিষেধ করবেন: ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান অবৈধ সরকার পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে জনগণকে পেঁয়াজ খেতে নিষেধ করছে। তাহলে চালের দাম বাড়লেও কি জনগণকে তারা ভাত খেতে নিষেধ করবেন?

সরকারের দায়িত্ব জিনিসপত্রের মূল্য নিয়ন্ত্রণ করা। কে কী খাবে না খাবে তা নির্ধারণ করে দেয়া নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সরকার পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়ে জনগণকে পেঁয়াজ খেতে নিষেধ করছে। তাহলে চালের মূল্য কেজিতে ১০ থেকে ১৫ টাকা, আটার মূল্য ৫ থেকে ১০ টাকা বৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে তারা এখন কী বলবেন!

‘ভাত খাওয়া বন্ধ করে দিতে? রুটি খাওয়া বন্ধ করে দিতে? ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছে, সুতরাং তেল খাওয়াও কি বন্ধ করে দিতে হবে?’

মির্জা ফখরুল বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ হয়েছে। পেঁয়াজ, চাল, ডাল, তেল, লবণ থেকে শুরু করে সবকিছুর দাম অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে।

তিনি বলেন, পেঁয়াজের ঝাঁজ এখন চাল, ডাল, লবণ, তেল, আদা, রসুন শুরু করে শীতকালীন সব সবজিতে সংক্রমিত হয়েছে। সব জিনিসের দাম সাধারণ মানুষের ক্রয়সীমার বাইরে চলে গেছে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে গত মাস কয়েক যাবৎ আমরা কথা বলছি। দেশের গণমাধ্যমে এ বিষয়ে প্রতিদিন রিপোর্ট বের হচ্ছে। সরকার প্রধান নিজেও ‘পেঁয়াজ বিমানে উঠে গেছে, আর কোনো সমস্যা নাই’ বলেই এয়ার শো দেখতে দুবাই থেকে ইডেনে গার্ডেন হয়ে এখন আবার মাদ্রিদ শহরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি, স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।