২২, নভেম্বর, ২০১৯, শুক্রবার | | ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

বাগেরহাটে সরকারের তিন মেগা উন্নয়ন প্রকল্পের জমি অধিগ্রহণে জমি মালিকদের ঘুষ, দালালী ছাড়াই ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে – শেখ তন্ময়ের এমপি

আপডেট: November 4, 2019

বাগেরহাটে সরকারের তিন মেগা উন্নয়ন প্রকল্পের জমি অধিগ্রহণে  জমি  মালিকদের ঘুষ, দালালী ছাড়াই ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে – শেখ তন্ময়ের এমপি

বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময় বলেছেন, বর্তমানের সরকারের তিনটি মেগা উন্নয়ন প্রকল্পের অধিগ্রহণকৃত জমি মালিকদের ঘুষ, দালালী ছাড়াই তাদের ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর করা হয়েছে। ইতিমধ্যে এই তিনটি প্রকল্পের ৬৫ ভাগ টাকা জমি মালিকদের দেয়া সম্ভব হয়েছে। ঘুষ দালালী ছাড়াই দূর্নীতিমুক্তভাবে জমি মালিকদের টাকা পরিশোধ করার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূর্নীতিমুক্ত দেশ গড়ার যে প্রত্যয় তা বাস্তবায়িত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন এমপি তন্ময়।

সোমবার দুপুরে জেলা প্রশাসন আয়োজিত বাগেরহাটের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্ত জমির মালিকদের চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তরুণ ওই সাংসদ।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন আয়োজিত চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায়। অনুষ্ঠানে এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দীনসহ জেলা প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় সাংবাদিকরা।

বাগেরহাটে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্ত জমির মালিকদের ১২৮ চেকের মাধ্যমে ছয় কোটি ১৭ লাখ ৯৬ হাজার ৬৫৩ টাকা টাকার ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর করে জেলা প্রশাসন।

উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর মধে রয়েছে, বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার কৈর্গদাসকাঠি মৌজায় এক হাজার আটশ ৩৪ একর জমির উপর নির্মানাধীন কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র, একই উপজেলার খানজাহান আলী বিমানবন্দর এবং খুলনা হতে মোংলা বন্দর পর্যন্ত রেল লাইন নির্মান। সরকারের এসব উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে। এসব প্রকল্পে এখন পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত জমি মালিকদের পাওনার ৬৫ ভাগ সরকার পরিশোধ করা হয়েছে বলে জানান জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ।