নেতার হামলায় প্রকৌশলী হাসপাতালে!

সমগ্র বাংলা

আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি একেএম হুমায়ুন কবিরের হামলায় প্রকৌশলী জাকিরুল ইসলাম (৪৮) হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আদিতমারী হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়েছে। একই ঘটনায় তার এক সহকর্মী আশরাফুল ইসলামকে (৫০) প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এর আগে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আদিতমারী উপজেলার সারপুকুর ইউনিয়নের সরলখাঁ উচ্চবিদ্যালয় এলাকায় কাজ পরিদর্শনে গেলে এ হামলার শিকার হন তিনি।

আহত প্রকৌশলী জাকিরুল ইসলাম লালমনিরহাট সদর উপজেলার রাজপুর ইউনিয়নের চাংরা গ্রামের শাহজাহান আলীর ছেলে। তিনি আদিতমারী উপজেলা উপ-সহকারী প্রকৌশলী পদে কর্মরত।

আহত প্রকৌশলী জাকিরুল ইসলাম জানান, উপজেলার সরলখাঁ উচ্চ বিদ্যালয় থেকে তেঁতুলতলা হয়ে টেপারহাট পর্যন্ত বাইপাস সড়কের সংস্কারকাজ চলছে। বৃহস্পতিবার সকালে সেই সংস্কারকাজ শুরু হলে পরিদর্শনে যান তিনি। এ সময় সেখানে স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি একেএম হুমায়ুন কবির ও তার লোকজন কাজের মান নিম্নমানের উল্লেখ করে কাজ বন্ধ করার হুমকি দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে।

একপর্যায়ে হুমায়ুন কবির ও তার লোকজন লাঠিসোঁটা নিয়ে আমার ওপর হামলা চালায়। এ সময় বাধা দিতে গেলে সহকর্মী আশরাফুল ইসলামও আহত হন।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে আদিতমারী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে তাকে লালমনিরহাট জেলা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। চিকিৎসকরা প্রকৌশলীকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিলেও তার সহকর্মী আশরাফুলকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়েছেন।

তবে অভিযুক্ত জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগে সহ-সভাপতি একেএম হুমায়ুন কবিরের দাবি—সড়ক সংস্কারকাজে অনিয়ম হয়েছে। এ নিয়ে ঠিকাদারের সাথে কথা বলার সময় ওই প্রকৌশলী নিজে বিষয়টি টেনে নিয়ে এলাকাবাসীর সাথে বিতর্কে জড়ায়। হামলার কোনো ঘটনা ঘটেনি বলেও দাবি করেন তিনি।

লালমনিরহাট স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী একেএম আমিরুজ্জামান হাসপাতালে আহত প্রকৌশলীকে দেখতে এসে সাংবাদিকদের বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে কথা হয়েছে। তাদের সিদ্ধান্ত মোতাবেক এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আদিতমারী থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন। প্রকৌশলীকে লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ দিকে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম সংবাদিকদের জানান, এমন ঘটনা তাদের জানা নেই। তবে এমন ঘটনায় সম্পৃক্ত থাকলে বা মামলা হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *