৯, ডিসেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

টেকনাফে বন্দুক যুদ্ধে রোহিঙ্গা সহ নিহত দুই

আপডেট: October 12, 2019

টেকনাফে বন্দুক যুদ্ধে রোহিঙ্গা সহ নিহত দুই

খাঁন মাহমুদ আইউব ঃ কক্সবাজারে টেকনাফে পুলিশের হাতে আটক পরবর্তী কথিত বন্দুক যুদ্ধে দুই মাদক কারবারী নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছেন অন্তত তিন পুলিশ সদস্য। নিহতরা হলেন টেকনাফ সদর ইউনিয়নের হাতিয়ার ঘোনার হাজী হামিদ হোছনের পুত্র আহমদ হোসেন (৪৫) এবং তার সহযোগী নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডি-ব্লকের ২৮নং শেডের বাসিন্দা মৃত রোহিঙ্গা কালা মিয়ার পুত্র আব্দুর রহমান (৪৬)।

নিহত আহমদ হোসেন তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী ও অর্ধডজন মাদক মামলার আসামি বলে দাবী করেছে টেকনাফ থানা ওসি প্রদীপ কুমার দাশ।

তিনি জানান, শুক্রবার (১১ অক্টোবর) তালিকাভুক্ত মাদক কারবারী অর্ধডজন মাদক মামলার আসামি হামিদ হোসেন ও তার সহযোগী আব্দুর রহমানকে পৃথক ভাবে আটক আটক করে। আটক পরবর্তী শনিবার তাদের নিয়ে সদর ইউনিয়নের পর্যটন বাজারের উত্তরে মালির পাহাড়ে ইয়াবা ও অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যায়। এসময় পাহাড়ের পাদদেশে পৌঁছামাত্র তাদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। এতে এসআই মোঃ বাবুল, এএসআই অহিদ ও কনস্টেবল মালেক গুলিবিদ্ধ হয়। জবাবে পুলিশ পাল্টা গুলি ছুঁড়লে সন্ত্রাসীরা পিছু হঠে।

পরবর্তীতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ঘটনাস্থল তল্লাশী করে ২টি এলজি, ৮ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৫হাজার ইয়াবাসহ গুলিবিদ্ধ আহমদ হোসাইন ও আব্দুর রহমানকে উদ্ধার করে।

গুলিবিদ্ধ ২ জনকে চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যায়। মৃতদেহ ২টি মর্গে রাখা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, তদন্ত স্বাপেক্ষে এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।