নাচুনে নদী যমুনায় নৌকা বাইচ অনুষ্ঠিত

জীবনযাত্রা

আজিজুররহমান মুন্না,সিরাজগঞ্জ ঃ ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় নাচুনে নদী যমুনায় কাসার ডঙ্কা বাজিয়ে বৈঠার ছন্দে ছন্দে অনুষ্ঠিত হলো নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা। উচ্চ স্বরে ”আল্লাহ -আল্লাহ বলো—-”মাঝি ধ্বণি তুলে ‘জোরসে চালাও হেইও, আরো জোরে হেইও, ছন্দ মিলিয়ে মাল্লাদের বৈঠা চালানোর সেই অপরুপ দৃশ্য যমুনাতীরে অপেক্ষমান দর্শকদের মনে শিহরণ জাগিয়েছে। উচ্ছাসে ফেটে পড়েছে দর্শক সমর্থকেরা। বৃহস্পতিবার বিকেলে সিরাজগঞ্জের যমুনাপাড়ের হার্ডপয়েন্টে অনুষ্ঠিত হয়েছে ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ।

আবহমান বাঙলার ঐতিহ্যবাহী ও প্রাচীন সংস্কৃতির অনুসঙ্গ এই নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা। সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের আয়োজনে প্রতিযোগিতার মুল উদ্যোক্তা ছিলেন সাবেক মন্ত্রী জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাস। খরস্্েরাতা যমুনায় নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় ঢাক-ঢোলের বাজনার সাথে জারি-সারি ও ভাটিয়ালী গানের তালে তালে মাঝিদের ছন্দময় বৈঠা চালানোর সে দৃশ্য ছিল অপরুপ। যমুনায় নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা দেখতে আসা সিরাজগঞ্জ ও টাঙ্গাইল জেলার যমুনাপারের মানুষের উচ্ছাস, উদ্দীপনা এবং মুহুর-মুহু করতালীতে মুখরিত ছিল আড়াই কিঃমি দীর্ঘ হার্ডপয়েন্টের পুরো এলাকা। আইন শৃঙ্খলা বাহিনীও ছিল সদা সতর্ক। নানা রঙয়ের বর্ণের, বাহারী পোষাক পড়ে শিশু, আবাল-বৃদ্ধরা মেতে উঠেছিল উৎসবের আমেজে। নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা যমুনাপাড়ে নারীদের উপস্থিতিও ছিল লক্ষণীয়।

প্রতিযোগিতায় পানসি, কোষা ও বৃহৎ আকারের খেলনা নামের তিরিশটি নৌকা অংশ গ্রহণ করে। কাসার ডঙ্কা, ঢোল, বাদ্যযন্ত্রের তালে-তালে উচ্চ স্বরে আল্লাহ-আল্লাহ ধ্বণি দিয়ে ‘জোরসে বল হেইও, আরো জোরে হেইওর ছন্দে ছন্দে মাঝিরা বৈঠা চালিয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। মাঝিদের বৈঠার ছন্দে যমুনারতীরের দর্শকেরাও মেতে উঠে উচ্ছাসে। সমান তালে ছুটে চলে সমর্থকরা। তীরের দর্শকদের করতালি, হর্ষধ্বনি পরিশ্রান্ত মাঝিদের উৎসাহ জোগায়। সিরাজগঞ্জের ক্রিকেটাঙ্গনের নামকরা দল রাশেদ ইউসুফ জুয়েলের সিরাজগঞ্জ টাইগার্স এর পানসি নৌকা ঘিরে দর্শকদের ছিল আলাদা আগ্রহ। দৃষ্টিনন্দন কমলা রঙ জার্সি পড়ে মাঝি-মাল্লার জারিগান আর বৈঠার টানের প্রতি মানুষের ছিল নানা অনুভুতির আবেগ আর উৎচ্ছাস।

এদিকে এই বাইচকে ঘিরে যমুনাপারে আড়াই কিঃমিঃ হার্ডপয়েন্টে বসেছিল নানা মুখরোচক খাবারের দোকান। সেখানেও ছিল নারী-পুরুষ বিভিন্ন বয়সী মানুষের ভীড়।
প্রতিযোগিতায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ হাবীবে মিল্লাত মুন্না এমপি। জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহম্মদ,পরিষদ প্রধান নির্বাহী ইকতেখার উদ্দিন শামীম, জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি অ্যাডভোকেট কেএম হোসেন আলী হাসান, সহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ এবং জেলা পরিষদের সদস্য ও অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *