টেকনাফ রোহিঙ্গা শিবিরে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি!

সমগ্র বাংলা

ফলো আপ:

খাঁন মাহমুদ আইউব, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট।
কক্সবাজারের টেকনাফ রোহিঙ্গা শিবিরে পুলিশ কে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়েছে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা। মঙ্গলবার দুপুর ১২টা নাগাদ রোহিঙ্গা ডাকাত কালা সেলিম নিহতের ঘটনায় নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবির সংলগ্ন শালবল রোহিঙ্গা শিবিরে আভিযানে গেলে এ ঘটনা ঘটে। তবে এই ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি বলে নিশ্চিত করেছেন নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবির পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এস আই) মনির।

তিনি জানান, মঙ্গলবার বেলা ১২টা নাগাদ উপজেলার নয়াপাড়া শালবন রোহিঙ্গা শিবিরে একদল রোহিঙ্গা সশস্ত্র ডাকাত দলের অবস্থানের সংবাদ পেয়ে পুলিশের একটি টিম অভিযান যায়। এসময় রোহিঙ্গা ডাকাত কালা সেলিমের হত্যাকারী তার সেকন্ড ইন কমান্ড জাকির সহ তার সাথে অবস্থানকারী ডাকাতদের ধাওয়া করে। এসময় তারা পুলিশ কে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে পার্শ্ববর্তী পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়। এঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

শালবন রোহিঙ্গা শিবিরের নাম গোপন রাখার শর্তে কয়েক জন মাঝি (নেতা) জানান, সোমবার রাতে পাহাড়ে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নিজ সহচর ডাকাত জাকিরের হাতে ডাকাত সর্দার কালা সেলিম নিহতের ঘটনায় পুলিশের ধাওয়ার মুখে ২০/২৫ রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে ডাকাত জাকির বাহিনী। গত রাত থেকেই রোহিঙ্গা শিবির ও তৎসংলগ্ন এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

শিবিরে দায়িত্বরত কয়েকজন আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা জানান, বিগত সময়ে এসব সশস্ত্র রোহিঙ্গা ডাকাতদের হাতে শালবন ক্যাম্পে আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্য নিহত এবং বেশ কয়েক দফা হামলার শিকার হয়েছে। তাই সন্ধ্যার পর থেকে আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা ২৬/২৭ নং শিবিরে ঢুকতে ভয়পায়।

উল্লেখ্য, গতকাল রাতে ডাকাত কালা সেলিম নিহত হওয়ার পর থেকে রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত তার লাশের সন্ধান পায়নি আইনশৃংখলা বাহিনী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *