ছেলেধরা সন্দেহে তিন নেতাকে মারধর

আন্তর্জাতিক

‘ছেলেধরা’ সন্দেহে তিন কংগ্রেস নেতাকে মারধর করলো ভারতীয় জনতা। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক গ্রামে। বিষয়টি ভারতীয় গণমাধ্যমে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে গত বৃহস্পতিবার গ্রামবাসীরা গুজব শুনেছিল যে, একদল ছেলেধরা মধ্যপ্রদেশের বেতুল জেলার নবলসিন গ্রামে হানা দিতে আসছে রাতে। গ্রামবাসীরা রাস্তা আটকাতে গাছ ফেলে রাখে। ওই রাতে ওই এলাকায় গাড়ি করে আসেন তিন কংগ্রেস নেতা। তাদের ধর্মেন্দ্র শুক্লা, ধার্মু সিংহ লাঞ্জিওয়ার এবং ললিত বরাস্কর। রাস্তা আটকানো দেখে তারা ভয় পেয়ে যান। তাদের ধারণা ছি‌ল কোনও ডাকাতের দলেরই চক্রান্ত এটা। তারা ফিরে যেতে চান।

তখনই তাদের তাড়া করে গ্রামবাসীরা। দ্রুত ওই নেতাদের ঘিরে ফেলে গ্রামের বাসিন্দারা। তাদের গাড়ি ভেঙে দেওয়া হয়। গাড়ি থেকে তাদের প্রচণ্ড মারধর করা হয়।

সিনিয়র পুলিশ আধিকারিক রামস্নেহী মিশ্র বলেন, ‘ওদের ছেলেধরা সন্দেহে গ্রামবাসীরা পিছু নেয় গাড়ির এবং আক্রমণ করে। ওই তিন নেতাকে তারা নিগ্রহও করে। একটি কেস ফাইল করা হয়েছে বেতুল পুলিশের পক্ষে। তদন্ত শুরু হয়েছে।’

গত সপ্তাহে ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনির একাধিক ঘটনা ঘটেছে মধ্যপ্রদেশে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *