নুর উদ্দিন গ্রেফতার

আইন ও আদালত

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির শরীরে আগুন দেয়া সন্দেহভাজন মুখোশধারী নুর উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শুক্রবার (১২ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ময়মনসিংহ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে নুসরাত জাহান রাফির দেহে আগুন দেয়া মুখোশধারীদের মধ্যে নুর উদ্দিন নামে একজন ছিলেন বলে সন্দেহের কথা জানান এলাকাবাসী। অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলা মুক্তি পরিষদের নেতৃত্ব দেয়া এই যুবক, স্থানীয়দের কাছে কেরোসিন তেলের বোতল ও ম্যাচ বাক্স উদ্ধারের দাবি করেছিলেন।

এলাকাবাসীদের একজন বলেন, ‘নুর উদ্দিনকে জিজ্ঞাসা করলাম তুই তো আছিলিস ওখানে। নুর উদ্দিন বলছে আমি ছিলাম। কেরাসিন আর ম্যাচ ছাদ থেকে আনছি’।

প্রসঙ্গত, মেয়েকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলার বিরুদ্ধে সোনাগাজী থানায় মামলা করেন নুসরাতের মা। এ মামলায় গত ২৭ মার্চ গ্রেফতার হয় অধ্যক্ষ সিরাজ। পরদিনই নুর উদ্দিন নেতৃত্বে গড়ে তোলা হয় সিরাজ উদ দৌলা মুক্তি পরিষদ। একই দিন দুপুরে করা হয় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ। সেখানে নুসরাতের পক্ষে অবস্থান নেয়াদের হুমকি দিয়েছিলেন নুর।

নুসরাতের ভাইয়ের দাবি, নুর উদ্দিনই তার বোনের প্রধান হত্যাকারী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *