২২, নভেম্বর, ২০১৯, শুক্রবার | | ২৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

ইয়াবা ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে লেখায় সাংবাদিককে হুমকি, থানায় জিডি

আপডেট: April 14, 2019

ইয়াবা ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে লেখায় সাংবাদিককে হুমকি, থানায় জিডি

নিজস্ব প্রতিবেদক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী স্ট্যাটাস দেয়ায় সিটিজি ক্রাইম টিভির বার্তা সম্পাদক মাজেদুল ইসলামকে হুমকি দিয়েছে নগরীর পাথরঘাটা এলাকার কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী সাহেদুল ইসলাম সাগর।এ ঘটনায় নগরীর বায়েজিদ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে।

অভিযুক্ত মাদক ব্যবসায়ী সাহেদুল ইসলাম সাগর পাথরঘাটা এলাকার ছবুর সওদাগরের বাড়ির আব্দুল মালেকের ছেলে।

অভিযোগে বলা হয়, গতকাল শনিবার বিকালে সিটিজি ক্রাইম টিভির বার্তা সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে মাদক ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্য একটি পোস্ট দেন।পোস্টটি দেয়ার কিছু সময় পর অবৈধ মাদক ব্যবসায়ী সাহেদুল ইসলাম সাগর (০১৮১৫১৪৯৪১৭)এই নাম্বার থেকে ফোন দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে।

এব্যাপারে ভুক্তভোগী সাংবাদিক মাজেদুল ইসলাম বলেন, চট্টগ্রাম নগরীতে মাদকের অন্যতম অভয়াশ্রম পাথরঘাটা ফিসারীঘাট এলাকা। এ এলাকায় দিন দিন মাদক ব্যবসায়ীদের নিরাপদ পদচারণা বেড়েই চলেছে।আর এই মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দেয়ায় হুমকির মুখে পড়েছেন তিনি।এ ঘটনায় অভিযুক্ত দোষীকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

অভিযোগের ব্যাপারে বায়েজিদ থানার অফিসার ইনচার্জ আতাউর রহমান বলেন, মাদক ব্যবসায়ীর হুমকির ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি লিপিবদ্ধ করা হয়েছে।তদন্ত করে দ্রুত হুমকিদাতাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, সাহেদুল ইসলাম সাগর পুলিশের তালিকাভুক্ত একজন অবৈধ মাদক ব্যবসায়ী।২০১৭ সালের ১১ সেপ্টেম্বর লালদিঘী পাড়ের একটি আবাসিক হোটেল থেকে ২ হাজার ৫ শত পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী সাগর ও তার সহযোগী রনি দাশকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে কোতয়ালী থানা পুলিশ।পরে এসআই কাজী এনামুল হক বাদী হয়ে সাগর ও রনির বিরদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন।মামলা নং- ১৫/৭০১।এঘটনায় মাদক সম্রাট সাহেদুল ইসলাম সাগর দীর্ঘদিন জেল খেটে বের হয়ে আবারও পুরো চট্টগ্রাম জুড়ে মাদকের সাম্রাজ্য গড়ে তুলেছে।শুধু তাই নয়, মাদক ব্যবসায়ী সাগরের বিরুদ্ধে কেউ কোন কথা বললে তাকে হুমকি ধমকি দিয়ে দমিয়ে রাখার চেষ্টা করে সাগর।এরকম হুমকির শিকার হয়ে অনেকে নগরীর বিভিন্ন থানাসহ গোয়েন্দা বিভাগের কাছে একাধিক অভিযোগ করলেও ধরা ছোঁয়ার বাহিরে থেকে দিব্যি মাদক ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে এই মাদক ব্যবসায়ী।

কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ মহসিন বলেন, মাদক ব্যবসায়ী সাগরকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়েছিলো।সে একজন পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী।

চট্টগ্রাম গোয়েন্দা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার(উত্তর) বলেন, সাহেদুল ইসলাম সাগরের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেয়েছি।খুব দ্রুত এই অপরাধীকে আইনের আওতায় আনা হবে।