১৫, ডিসেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ১৭ রবিউস সানি ১৪৪১

সপ্তম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করল ৬৫ বছরের নৈশপ্রহরী

আপডেট: May 14, 2019

সপ্তম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করল ৬৫ বছরের নৈশপ্রহরী

সাভারের গেন্ডা এলাকায় ১৫ বছরের সপ্তম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেছে নৈশপ্রহরী। বিষয়টি জানতে পেরে নৈশপ্রহরী আলম মিয়াকে (৬৫) গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

সোমবার দুপুরে সাভার পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ডের গেন্ডা এলাকায় টিয়াবাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। পরে ধর্ষণের শিকার শিক্ষার্থীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আটককৃত আলম মিয়া গাইবান্ধা সদর উপজেলার বাসিন্দা। গেন্ডায় আইয়ুব মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকত এবং এলাকায় নৈশপ্রহরী হিসেবে কর্মরত ছিল আলম।

স্থানীয়রা জানান, সপ্তাহ খানেক আগে ঝিনাইদহ থেকে গেন্ডায় ভাইয়ের বাসায় বেড়াতে আসে ওই শিক্ষার্থী। সোমবার দুপুরে বাসায় ওই শিক্ষার্থীকে একা পেয়ে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করে আলম মিয়া। পরে ওই শিক্ষার্থীর চিৎকার শুনতে পেয়ে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসে। পরে ধর্ষক আলম মিয়াকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন তারা।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাভার মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফ এম সায়েদ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষক আলম মিয়াকে আটক করেছে পুলিশ। ধর্ষণের শিকার হওয়া শিক্ষার্থীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

 

 

 

 

-এডি/ এএ