সাকিব বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নেবেন ভারতে

খেলাধুলা

সাকিব সানরাইজার্স হায়দরাবাদের একাদশে নিয়মিত সুযোগ পাচ্ছেন না। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপ অভিযানে রওনা দেওয়ার সময়টাও ঘনিয়ে আসছে ধীরে ধীরে। প্রস্তুতি আরও ভালোভাবে নিতে সাকিব ঢাকা থেকে হায়দরাবাদে উড়িয়ে নিচ্ছেন তাঁর শৈশবের কোচকে

কাল বিকেল পাঁচটায় কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দীন যাচ্ছেন হায়দরাবাদে। তাঁর দল গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগে উঠতে পারেনি। সালাউদ্দীনের সামনে অখণ্ড অবসর। তবে তিনি ছুটি কাটাতে যাচ্ছেন না হায়দরাবাদে। যাচ্ছেন সাকিব আল হাসানের ডাকে।

আইপিএল খেলতে সাকিব এখন হায়দরাবাদে। প্রথম ম্যাচে সুযোগ পাওয়ার পর আর একাদশে ঠাঁই মেলেনি বাংলাদেশ অলরাউন্ডারের। সাইড বেঞ্চে বসেই সময় কাটছে তাঁর। সামনে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ, এরপরই বিশ্বকাপ। চোটে পড়ায় নিউজিল্যান্ড সফরে যেতে পারেননি, বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নিতে আন্তর্জাতিক আবহে হওয়া আইপিএলের মতো ভীষণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটা টুর্নামেন্ট হতে পারত সাকিবের জন্য আদর্শ। কিন্তু সে সুযোগটা হচ্ছে না। বিদেশি কোটায় তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা থাকায় একাদশে জায়গা পাওয়া কঠিন। সময়টা কাজে লাগাতে সাকিব ডেকে নিচ্ছেন তাঁর শৈশবের কোচ সালাউদ্দীনকে।

আগেও দেখা গেছে, আইপিএলের কোনো এক ফাঁকে দেশে এসে সালাউদ্দীনের সঙ্গে দু-তিনটি অনুশীলন সেশন করে গেছেন সাকিব। কিন্তু এবার কেন কোচকে ভারতে ডেকে নিচ্ছেন তিনি? সন্ধ্যায় সালাউদ্দীন প্রথম আলোকে বললেন, ‘ওর আসল লক্ষ্য বিশ্বকাপ। বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ভালোভাবে সারতে আমাকে ডেকেছে।’

যেহেতু ম্যাচ খেলতে পারছেন না, সাকিব চাইছেন প্রস্তুতিটা যেন খুব ভালো হয়। হায়দরাবাদের অনুশীলনে নিশ্চয়ই তিনি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ভালোভাবে নিতে পারবেন না। সেখানে অনুশীলন করেন শুধুই আইপিএলে নিজেদের ম্যাচের কথা চিন্তা করে। আর একাদশের বাইরে থাকা ক্রিকেটারদের অনুশীলনটা আসলে ভালোভাবে হয়ও না।

বাংলাদেশ দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে। এই ক্যাম্পে সাকিবের যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। সালাউদ্দীন যাচ্ছেন এপ্রিলের পুরোটাই সাকিবের সঙ্গে কাজ করতে। তবে বাঁহাতি অলরাউন্ডার ঢাকায় এসে আয়ারল্যান্ডের বিমান ধরবেন বলে জানা গেছে। আইপিএল যেহেতু শহর ঘুরে ঘুরে খেলতে হয়, সাকিবের সঙ্গে এই ভেন্যু, ওই ভেন্যু করতে হবে সালাউদ্দীনকেও।

তাঁর অধীনে সাকিব কী ধরনের কাজ করবেন, সেটি অবশ্য এখনই বলতে পারলেন না সালাউদ্দীন, ‘অনুশীলন কোথায় করাব, কীভাবে হবে, এখনই বলতে পারছি না। ওর জন্য যাচ্ছি, শুধু এতটুকুই জানি। ওর চাহিদা কী, সেটা ওখানে গেলে বুঝব। আর সামনে যে ওর ম্যাচ খেলার সম্ভাবনা নেই, সেটিও বলা যাবে না। ম্যাচের চেয়ে বড় অনুশীলন তো আর কিছু হতে পারে না!’

শুধু টেকনিক্যাল বিষয়েই নয়, মনস্তাত্ত্বিক প্রস্তুতি সারতেও সালাউদ্দীনকে ঢাকা থেকে উড়িয়ে নিচ্ছেন সাকিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *