মাঠে মেসির রক্তাক্ত হওয়া নিয়ে সেই ডিফেন্ডারের ব্যাখ্যা

খেলাধুলা

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে মেসি রক্তাক্ত হন। সারা বিশ্বের মেসিভক্তরা তাই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ক্রিস স্মলিংয়ের ওপর ক্ষুব্ধ। তার চ্যালেঞ্জেই নাকে আঘাত পান লিওনেল মেসি।

এদিকে এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বিশেষ ব্যাখ্যা দিয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ক্রিস স্মলিং।

ইংলিশ এ ডিফেন্ডারের দাবি, তাতে বার্সেলোনা অধিনায়কের সঙ্গে কোনোরকম সমস্যা হয়নি। মাঠের ওই ঘটনাটি ছিল নিছক একটা দুর্ঘটনা।

বিবিসি রেডিও ফাইভকে স্মলিং বলেন, ‘রে আমরা কথা বলেছিলাম। আমরা কিছুক্ষণ কথা বলেছি এবং হাত মিলিয়েছি। সে (মেসি) জানে এটা একটা দুর্ঘটনা।’

“ওই সময় আমি ঠিক বুঝতে পারিনি যে ওভাবে আমি তাকে আঘাত করে বসব।”

“ম্যাচের পর সুয়ারেসও আমার কাছে এসেছিল। আমাদের মধ্যে একটা লড়াই হয়েছিল এবং পরে সে আমার সঙ্গে হাত মেলায় এবং বলে ‘গুড লাক’।”

“মাঠে এমন লড়াইয়ের পর ম্যাচ শেষে সম্মান দেখানোটা ভালো। শেষ পর্যন্ত তো আপনি শুধু নিজের সেরাটা দেয়ারই চেষ্টা করছেন।”

মেসির আঘাত পাওয়ার আগেই ম্যাচের একমাত্র গোলটি পেয়েছিল বার্সেলোনা। দ্বাদশ মিনিটে লুইস সুয়ারেসের হেডে বল ডিফেন্ডার লুক শ’র গায়ে লেগে গোললাইন পেরিয়ে যায়।

বুধবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে শেষ আটের প্রথম লেগে ১-০ গোলে জেতে প্রতিযোগিতার পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন বার্সেলোনা।

৩১তম মিনিটে স্মলিংয়ের চ্যালেঞ্জে মেসির নাক দিয়ে রক্ত ঝরে। এরপর সাইডলাইনে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে পুরো ম্যাচেই খেলে যান আর্জেন্টাইন তারকা।

আগামী মঙ্গলবার বার্সেলোনার মাঠ কাম্প নউয়ে ফিরতি লেগ খেলতে যাবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ওই ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়ে সেমিফাইনালে যাওয়া ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী ব্যাক স্মলিং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *