১৯শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং, রবিবার

গণতন্ত্র কি সত্যিই মুক্তি পেয়েছে : জি এম কাদের

আপডেট: ডিসেম্বর ৭, ২০১৯

| Palash Mondol

সংবিধানে পূর্ণ গণতান্ত্রিক চর্চার সুযোগ দেওয়া হয়নি বলে দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তিনি প্রশ্ন করেছেন, ‘গণতন্ত্র কি সত্যিই মুক্তি পেয়েছে, স্বৈরাচার কি সত্যিই নিপাত গেছে?’

আজ শুক্রবার জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন জি এম কাদের। ৬ ডিসেম্বর দিনটি সংবিধান সংরক্ষণ দিবস হিসেবে পালন করে দলটি।

জি এম কাদের বলেন, ‘গণতন্ত্র কি সত্যিই মুক্তি পেয়েছে? স্বৈরাচার কি সত্যিই নিপাত গেছে? তার অর্থ হলো সংবিধানে যে পদ্ধতিতে দেশ পরিচালিত হচ্ছে, সেই সংবিধানে আমাদের কিছুটা নিয়ন্ত্রিত গণতন্ত্র উপহার দেওয়া হয়েছে। সম্পূর্ণ গণতন্ত্রের চর্চা আমরা এই সংবিধানে করতে পারছি না।’

জাপার চেয়ারম্যান আরো বলেন, ‘এরশাদ জোর করে ক্ষমতা ধরে রাখতে চাননি কিংবা সেনাবাহিনীর হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করে সংবিধানকে কলঙ্কিত করেননি। সাংবিধানিক প্রক্রিয়ায় ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিলেন। কিন্তু সে সময়ে বিরোধীদলীয় জোট কথা রাখেনি; তাঁকে নির্বাচনে অংশ নিতে দেয়নি।’

এরশাদকে স্বৈরাচার হিসেবে অভিহিত করা হলেও কোনো সরকারই এ অপবাদ থেকে মুক্ত হতে পারেনি বলেও মন্তব্য করেন জি এম কাদের। তিনি বলেন, ‘এরশাদকে বারবার প্রকাশ করা হয়, অথচ উনার আগে ও পরে যাঁরা দেশ পরিচালনা করেছেন, তাঁরাও গণতন্ত্রের চর্চা সঠিকভাবে করেননি। এটার একটা অপবাদ তাঁদের নিতে হয়েছে।’